1. admin@dailygrambangla.com : admin :
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ডেমরায় অবৈধ মেলার আয়োজন সাঁথিয়ায় রাস্তা উন্নয়ন ও ব্রীজ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করেন ডেপুটি স্পিকার সোনারগাঁও সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখকদের নতুন কমিটির অনুমোদন সাঁথিয়া উপজেলার উন্নয়ন কাজ পরিদর্শ করেন ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু সোনারগাঁয়ে এসিল্যান্ডের গাড়ি চাপায় টাইলস ব্যবসায়ী নিহত, জনগণ যদি সচেতন হয় আমি নির্বাচনে অংশ নিবো-আব্দুল বাতেন নারায়ণগঞ্জ আইন কলেজের উদ্যোগে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন পাঁচুরিয়া দাখিল মাদ্রাসার চারতলা বিশিষ্ট একাডেমি ভবন শুভ উদ্বোধন পাবনায় ব্যবসায়ী মাহবুব আলমের উপর হামলায় গ্রেফতার-২

রাজধানীর সবুজ বিদ্যাপীঠ উচ্চ বিদ্যালয় স্কুলে এস.এস.সি ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ 

  • আপডেট : সোমবার, ৬ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১০৭ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার:

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানাধীন বিবির বাগিচা ১নং গেইট সবুজ বিদ্যাপীঠ উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরিক্ষা -২০২৪ সালের দুটি নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।গত ২৬-১০-২৩ ইং তারিখে একটি প্রধান শিক্ষক এর স্বাক্ষর ও সিল সহ যাতে লেখা আছে শুধু মাত্র বোর্ড ফি বিজ্ঞান বিভাগ ২১৪০ টাকা, মানবিক বিভাগ ও ব্যবসায় শিক্ষা ২০২০ টাকা, ছাত্রছাত্রীদের প্রদান করতে বলা হয়েছে।গত ০২-১১-২৩ ইং তারিখে আর একটি শুধু মাত্র অফিসের সিল প্রদান করে সভাপতি নির্দেশে বোর্ড ফি সাথে অতিরিক্ত ৬০০০ টাকা যোগ করে প্রদান করা হয়েছেন। ফরমের জন্য অতিরিক্ত আরও ২০০টাকা আদায় করছে। অতিরিক্ত টাকা না দিলে ফরম পূরণ করতে দেওয়া হবে না বলে অভিভাবকগন জানালেন এবং ছাত্র/ছাত্রীদের কাছ থেকে ফি আদায় করছেন।

যা অনেক অভিভাবক দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। অভিভাবকরা আরো বলেন বিগত কালে এই স্কুলে নিয়ম করে ছাত্র/ছাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে আসছেন। স্কুল কমিটির দূর্নীতির জন্য দিনে দিনে ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা কমে যাচ্ছে। অনেক পরিবারের অতিরিক্ত ফি এর চিন্তায় সন্তানদের মনের উপর প্রভাব ফেলছে। এই বিষয় প্রধান শিক্ষক কে মোবাইলে জানতে চাইলে তিনি অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়ে অস্বীকার করেন।অভিভাবকগন বলেন শিক্ষা মন্ত্রীর নির্দেশ অমান্য করে ৫ম শ্রেনীর ২২০ উপরে ছাত্রছাত্রীর কোচিং ফি ১০০০ টাকা ও ১০ম শ্রেণীর ২০০ উপরে ছাত্র/ছাত্রীর কোচিং ফি ১২০০ টাকা করে আদায় করেন। যা প্রতি মাসে ৪ লক্ষ ২০ টাকা উপরে আদায় করেন সভাপতি যা প্রধান শিক্ষক জানেন না।এ সমস্ত টাকা আদায় করা হয় কোন রকম রশিদ ছাড়া। আদায়কৃত কোচিং ফি এর এক টাকাও স্কুল ফান্ডে জমা হয় নাই। স্কুল ছাত্র/ছাত্রীর অনুপস্থিতির জরিমানার টাকা ও চলে যায় সভাপতির পকেটে।

একি বিষয় সভাপতি’র কাছে মোবাইলে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটি তিন মাসের স্পেশাল ক্লাস ফি নেওয়া হচ্ছে ।কেউ স্পেশাল ক্লাস করতে না চাইলে সে শুধু মাত্র বোর্ড ফি প্রদান করতে পারবে।
স্কুল অভিভাবকদের দাবি শুধু মাত্র বোর্ড ফি এর মাধ্যমে পরিক্ষা দেওয়ার জন্য।
এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দেশ প্রকাশ ©
Theme Customized By Shakil IT Park