1. admin@dailygrambangla.com : admin :
মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৯:৪২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বেড়ায় প্রস্তাবিত শেখ রাসেল শিশু পার্কের কাজ শুরু বেড়ায় সাবেক কাউন্সিলর রফিকুলের বিরুদ্ধে থানায় বাবার লিখিত অভিযোগ সোনারগাঁওয়ে আনারস প্রতীকের পক্ষে টাকা দেওয়ার সময় আটক-১ উপজেলা নির্বাচনে কালামের “ঘোড়া”সমর্থন দিলো কেন্দ্রীয় আ’লীগ নেতা ইঞ্জি.শফিকুল ইসলাম আমাকে ঠেকাতে চলছে অনেক ষড়যন্ত্র – মাহফুজুর রহমান কালাম বন্দরে মদনপুর ইউনিয়ন শ্রমিক লীগের সভাপতি রুহুল আমিন বহিষ্কার  বেড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বাবু’র হেলিকপ্টার প্রতীকের গণজোয়ার হুমকি ধমকি ও রক্তচক্ষুকে আমরা ভয় পাইনা: মাকসুদ হোসেন সাংবাদিকের বাড়িতে মাদক ব্যবসায়ী ও কিশোর গ্যাং এর হামলা ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ছাত্রলীগের উপ-বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক- হলেন সোনারগাঁয়ের আবু কাওসার

পানি উন্নয়ন বোর্ডের সেচ খালের মধ্যে অবৈধ ক্রস বাঁধ অপসারণের নোটিশ

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৪৬০ বার পঠিত

হৃদয় হোসাইন বেড়া (পাবনা)

পাবনার বেড়া পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড আলহেরা নগরের এক বাসিন্দা তার ব্যাক্তিগত বহুতল নির্মাণের প্রয়োজনে। পাবনা সেচ ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের আই-৩ এস-১ টি-১ সেচ খালের মধ্যে অবৈধভাবে ক্রস বাঁধ স্থাপিত করেন। বিষয়টি কতৃপক্ষের নজরে আসলে। সোমবার ৯ অক্টোবর বেড়া পওর শাখা-১বাপাউবো,উপ-সহকারী প্রকৌশলী/শাখা কর্মকর্তা মোঃ শামসুর রহমান। আলহেরা নগরের হাফিজুর রহমান বিপ্লব (পিতা মৃত ইদ্রিস আলী) বরাবর

পাবনা সেচ ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের আই-৩ এস-১ টি-১ সেচ খালের মধ্যে অবৈধভাবে স্থাপিত ক্রস বাঁধ অপসারণ প্রসঙ্গ বিষয় উল্লেখ করে একটি নোটিশ পাঠিয়েছেন। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে যে,উপর্যুক্ত বিষয় আলোকে জানানো যাচ্ছে যে, আপনি বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড, বেড়া, পাবনার অধীন পাবনা সেচ ও পল্লী উন্ন প্রকল্পের আই-৩ এস-১ টি-১ সেচ খালের মধ্যে অবৈধভাবে একটি রুল দিয়ে মালামাল পরিবহন করছেন। যা সম্পূর্ণ বেআইনী। এরূপ অপকর্মের ফলে পাবনা সেচ ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের সেচ খালের সেচ মৌসুমে সেচ প্রদানে বিঘ্ন ঘটবে এবং আপনার এরূপ কর্মকান্ডের ফলে অনেকেই এ কাজে উদ্বুদ্ধ হবে। ফলে আগত সেচ মৌসুমে পাবনা সেচ ও পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের আই-৩ এস-১ টি-১ সেচ খালের সেচ কার্যক্রম সম্পূর্ণরূপে বন্ধ হয়ে যাবে। আগামী ৭ (সাত) দিনের মধ্যে উক্ত ক্রস বাঁধ অপসারণ করে সেচ খালের পূর্বের অবস্থায় ফিরিয়ে দেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো। অন্যথায় আপনার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে এবং ক্রস বাঁধ অপসারণের যাবতীয় ব্যয়ভার আপনার নিকট হতে আদায় করা হবে। বিষয়টি অতিব জরুরী। এ বিষয় আরো জানতে চাইলে উপ-সহকারী প্রকৌশলী/শাখা কর্মকর্তা মোঃ শামসুর রহমান বলেন, আমাদের কাছে অনুমতি চেয়ে একটি আবেদন করেন।অনুমতি দেওয়া হয়নি। শুরুর দিকে বন্ধ করার জন্য মৌখিক ভাবে বলা হয়। বন্ধ না করে আরো কাজ করেছেন। এবার লিখিত নোটিশ পাঠানো হয়েছে। আইন অনুযায় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দেশ প্রকাশ ©
Theme Customized By Shakil IT Park