1. admin@dailygrambangla.com : admin :
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ১১:২৫ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁয়ে সুতা ব্যবসায়ীকে প্রাণনাশের হুমকি থানায় অভিযোগ সংবাদ প্রচার করায় শীর্ষ সন্ত্রাসী পরিচয়ে সাংবাদিককে মেরেফেলার হুমকি সোনারগাঁয়ে মামলার স্বাক্ষীকে প্রাণ নাশের হুমকি নিরাপত্তা চেয়ে থানায় জিডি বেড়ায় আশনা এনজিও কর্তৃক অবহেলিত নারীদের আইটি প্রশিক্ষণ শুভ উদ্বোধন আশনা এনজিও সহযোগিতায় বৃক্ষরোপন ও চারা বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন সোনারগাঁয়ে উপজেলা পরিষদে দায়িত্ব ভার গ্রহণ করলেন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানের মাহফুজুর রহমান কালাম বেড়ায় আওয়ামী লীগের ৭৫ বছর পূর্তি প্লাটিনাম জয়ন্তী পালন সোনারগাঁয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজনে আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন দয়াল নগর বাহারুন্নেসা পাবলিক লাইব্রেরির ও বিকে ফাউন্ডেশনের বিনামূল্যে চক্ষু অপারেশন ক্যাম্প বঙ্গবন্ধু সৃজনশীল মেধা অন্বেষণ প্রতিযোগিতায় ৩টি ক্যাটাগরিতেই ১ম স্থান মো. হানজালাল প্রধান 

প্রথম স্বামীর হাতুড়িপেটার তিন দিন পরে দ্বিতীয় স্বামীর মৃত্যু

  • আপডেট : শুক্রবার, ৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ১১১ বার পঠিত

নাজমুল হাসান, মাদারীপুর:

মাদারীপুরে সৌদিপ্রবাসীর তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীকে বিয়ে করায় হাতুড়িপেটার তিনদিন পর মারা গেলেন দ্বিতীয় স্বামী আজম মাতবর।

শুক্রবার (৪ নভেম্বর) দুপুরে জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত আজম সদর উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের খৈয়ারভাঙ্গা এলাকার রাজ্জাক মাতবরের ছেলে ও মোস্তফাপুর বাজারের মোবাইল মেকানিক ছিলেন।

স্বজনরা জানায়, ১০ বছর আগে মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার আটিপাড়া এলাকার লতিফ হাওলাদারের ছেলে ওবাইদুল হাওলাদারের (৩৮) সঙ্গে সদর উপজেলার খৈয়ার ভাঙ্গার কালাম ঢালীর মেয়ে লিমা আক্তারের (৩০) বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের ৫ বছর পর সৌদি চলে যায় ওবাইদুল। এ সময় তার স্ত্রী লিমার সঙ্গে মোবাইল মেকানিক আজমের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দেড় বছর প্রেম করার পর প্রথম স্বামীকে তালাক দিয়ে সন্তান রেখে আজমের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করে লিমা। বেশ কিছুদিন আগে সৌদি থেকে দেশে আসে ওবায়দুল। এরই জেরে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরার পথে মোস্তফাপুর পল্লী বিদ্যুৎ মসজিদের সামনে এলে মঙ্গলবার রাতে আজমের (লিমার বর্তমান স্বামী) ওপর হামলা চালায় ওবাইদুলসহ (লিমার প্রথম স্বামী) অজ্ঞাত ৮-১০ জন।

এ সময় আজমকে হাতুড়িপেটা করা হয়। শরীরের বিভিন্নস্থানে গুরুতর জখম করা হয়। আজমের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আজমকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। তিনদিন চিকিৎসা শেষে শুক্রবার দুপুরে মারা যায় আজম। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনোয়ার হোসেন চৌধুরী জানান, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দেশ প্রকাশ ©
Theme Customized By Shakil IT Park