1. admin@dailygrambangla.com : admin :
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ডেমরায় অবৈধ মেলার আয়োজন সাঁথিয়ায় রাস্তা উন্নয়ন ও ব্রীজ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্বোধন করেন ডেপুটি স্পিকার সোনারগাঁও সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখকদের নতুন কমিটির অনুমোদন সাঁথিয়া উপজেলার উন্নয়ন কাজ পরিদর্শ করেন ডেপুটি স্পিকার শামসুল হক টুকু সোনারগাঁয়ে এসিল্যান্ডের গাড়ি চাপায় টাইলস ব্যবসায়ী নিহত, জনগণ যদি সচেতন হয় আমি নির্বাচনে অংশ নিবো-আব্দুল বাতেন নারায়ণগঞ্জ আইন কলেজের উদ্যোগে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন আমতলীতে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন পাঁচুরিয়া দাখিল মাদ্রাসার চারতলা বিশিষ্ট একাডেমি ভবন শুভ উদ্বোধন পাবনায় ব্যবসায়ী মাহবুব আলমের উপর হামলায় গ্রেফতার-২

বঙ্গবন্ধুর ভালোবাসায় ৪৭ বছর ধরে রোজা রাখেন আ. লীগ নেতা

  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৫ আগস্ট, ২০২৩
  • ৬৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে ৪৭ বছর ধরে রোজা রাখছেন গাজীপুরের টঙ্গীর আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল আলীম মোল্লা। জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা থেকেই ১৯৭৬ সালের ১৫ আগস্ট থেকে রোজা রাখছেন তিনি। প্রতি বছর আগস্ট মাসের ১৫ তারিখের পর থেকে বিজোড় তারিখে রোজা রাখেন এই আ. লীগ নেতা।

প্রতি বছর বঙ্গবন্ধুর জন্য সাতটি রোজা রেখে ৩১ আগস্ট এলাকার দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে ঢাকার ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে দোয়া ও ইফতার করেন তিনি।

মো. আব্দুল আলীম মোল্লা গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫২ নম্বর ওয়ার্ডের প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর। বর্তমানে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে আব্দুল আলীম টঙ্গী থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সময় টঙ্গীর মুদাফা গ্রামের ২০ বছর বয়সী যুবকের বয়স আজ ৬৭ বছর। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের ঘটনা আজও কাঁদায় তাকে। এছাড়া বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা থেকেই প্রতি বছর ৩ নভেম্বর, শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ৭ মে, ময়েজউদ্দিনের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ২৭ সেপ্টেম্বরও রোজা রাখেন তিনি।

১৯৫৪ সালে গাজীপুর জেলার টঙ্গীর মুদাফা এলাকায় আব্দুল আলীম মোল্লার জন্ম। তার বাবা মো. আরব আলী মোল্লা ও মা কমলা বেগম। তিনি দুই ছেলে এক মেয়ের জনক। ১৯৬৯ সালের সেপ্টেম্বরে টঙ্গীর মুদাফা ও ভাদাম এলাকায় বন্যা কবলিত মানুষকে সাহায্য করতে আসা বঙ্গবন্ধুকে একনজর দেখতে ওই এলাকার সব শ্রেণি-পেশার মানুষ জড়ো হন। সেদিন বঙ্গবন্ধুকে দেখতে যান কিশোর আবদুল আলীম মোল্লা।

এ সময় বঙ্গবন্ধু তার গালে হাত ও মাথায় হাত বুলিয়ে আদর করে দেন। বঙ্গবন্ধুর সেই স্নেহের কথা মাথায় রেখেই তার আদর্শ জনমানুষের কাছে ছড়িয়ে দিতে আজও নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন আব্দুল আলীম। সরাসরি বঙ্গবন্ধুর স্নেহ পাওয়ার পর থেকেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা ভালোবাসার জন্ম।

রাজনৈতিক জীবনে বাংলাদেশের প্রথম টঙ্গী পৌরসভার মডেল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ১৯৯৫ সালে। আব্দুল আলীম মোল্লা তৎকালীন টঙ্গী থানা যুবলীগের সদস্য থাকা অবস্থায় বিপুল ভোটে ওয়ার্ড কমিশনার নির্বাচিত হন। পরে ২০০৬ সালে পৌর নির্বাচনে ফের কমিশনার হিসেবে নির্বাচিত হন। সর্বশেষ ২০১৮ সালে দেশের বৃহত্তর সিটি করপোরেশন ৫২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন।

টঙ্গী কৃষক লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন বলেন, আব্দুল আলীম আমার বন্ধু। প্রায় ৪৭ বছর ধরে রোজা রাখেন। নিজ ওয়ার্ডের মসজিদে দোয়া ও খাবার বিতরণ করেন। আগস্ট মাস জুড়ে চুল, নখ ও দাড়ি কাটেন না তিনি। বঙ্গবন্ধুকে ঘিরে নানা আয়োজনে আলীম নিজেকে ব্যস্ত রাখেন।

আ. লীগ নেতা আব্দুল আলীম মোল্লা বলেন, বাঙালি জাতির ১১ মাস আনন্দের এক মাস শোকের। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, যারা স্বাধীনতাকে মানতে পারেননি, তারাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। রোজার বিষয়টি আমি পারিবারিকভাবে পেয়েছি। বঙ্গবন্ধু জেলে থাকাকালীন আমার পরিবারের লোকজন রোজা রাখতেন। বঙ্গবন্ধুর জন্য আমারতো তেমন কিছু করার নেই।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার প্রতিবাদে আমি প্রতি বছর রোজা রেখে তার মাগফিরাত কামনা করি। আমার মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করে যাব বলে জানান প্রবীণ এই আ. লীগ নেতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দেশ প্রকাশ ©
Theme Customized By Shakil IT Park