1. admin@dailygrambangla.com : admin :
বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৫:৪৯ পূর্বাহ্ন

মসজিদে পুলিশ কর্মকর্তার ওপর মুসল্লিদের হামলা, জুতা নিক্ষেপ

  • আপডেট : শুক্রবার, ১০ জুন, ২০২২
  • ৩৭ বার পঠিত

নিউজ ডেস্ক:-

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতের দুই বিজেপি নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে উত্তেজনা ও অপ্রীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি না করতে অনুরোধ করায় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের একটি মসজিদে এক পুলিশ কর্মকর্তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় তাকে রক্ষা করতে গিয়ে এক সাংবাদিক ও মসজিদ কমিটির সভাপতিসহ আরও অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

শুক্রবার (১০ জুন) সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী বিহারী ক্যাম্প এলাকার আদমজী শাহী জামে মসজিদে জুমার নামাজের খুতবার সময় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ ঘটানস্থলে গিয়ে ওই পুলিশ কর্মকর্তাকে উদ্ধার করে ঢাকার রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যরা স্থানীয়ভাবে প্রথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নামাজের আগে মসজিদের ইমামের ওয়াজের সময় সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ আজিজুল হক মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। বক্তব্যের একপর্যায়ে তিনি বলেন, ‘নবীকে নিয়ে কটূক্তি করা হয়েছে ভারতে। ভারতের বিষয় ভারতে থাকুক। এ নিয়ে আমরা নিজেদের দেশে বিশৃঙ্খলা না করি।’ এ কথা শুনে মুসল্লিরা ক্ষুব্দ হয়ে প্রথমে তার সঙ্গে কথা কাটাকাটিতে জড়ান।  একপর্যায়ে তারা জুতা নিক্ষেপ করেন। পরে তার ওপর হামলা চালান মুসল্লিরা।

এ সময় তাকে রক্ষা করতে গিয়ে দৈনিক মানবজমিনের স্টাফ রিপোর্টার ও মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক বিল্লাল হোসেন রবিন এবং মসজিদ কমিটির সভাপতি হাকিম মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীনও আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে মসজিদ কমিটির সভাপতির বাসায় নিয়ে গেলে সেখানেও হামলা চালান উত্তেজিত মুসল্লিরা। অতিরিক্ত পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

খবর পেয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি ঘটনাস্থলে গিয়ে এসআই সৈয়দ আজিজুল হককে উদ্ধার করে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। বর্তমানে তাকে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ  হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

আহত সাংবাদিক বিল্লাল হোসেন রবিন বলেন, যারা হামলা চালিয়েছেন তাদেরকে এর আগে কখনো মসজিদে দেখিনি। এটি পরিকল্পিত কোনো হামলা কিনা খতিয়ে দেখা হবে। তবে হামলাকারীদের অধিকাংশ কিশোর বয়সের। হতে পারে তারা কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য কিংবা মাদক ব্যবসায়ী।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, ভারতের ব্যাপার নিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করতে অনুরোধ করায় এসআই সৈয়দ আজিজুল হকের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। বিহারী ক্যাম্পের কিছু মাদক ব্যবসায়ী তার ওপর ক্ষিপ্ত ছিল। কারণ তিনি এর আগে ওই এলাকায় বেশ কয়েকটি বড় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়েছিলেন। এ কারণেই হয়তো তার ওপর পরিকল্পিতভাবে এ হামলা চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় ওই এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত হয়েছে। তদন্ত করে এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২২ © দেশ প্রকাশ ©
Theme Customized By Theme Park BD